লক্ষ্মীপুরে জামানত হারালেন হাতপাখাসহ ৩ মেয়র প্রার্থী

প্রকাশিত: ১০:৫৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১, ২০২১

মো. আতোয়ার রহমান মনির: লক্ষ্মীপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রার্থী মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া ৩৭ হাজার ৭০৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র পদে বিজয়ী হয়েছেন।

অপরদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্ধি ইসলামী আন্দোলন হাতপাখা প্রতীকের মোহাম্মদ জহির উদ্দিন পেয়েছেন ২ হাজার ৫১৮ ভোট, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোবাইল ফোন প্রতীকের জাকির আল মামুন ৪৭০ ভোট, সিংহ প্রতীকের জাতীতাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মো. আব্দুর রহিম পেয়েছেন ২৮৫ ভোট।

তারা তিনজনই মোট প্রাপ্ত ভোটের ৮ ভাগের ১ ভাগ না পাওয়ায় জামানত হারিয়েছেন।এ পৌরসভায় ১৫টি ওয়ার্ড ২৮টি কেন্দ্রে মোট ৭১ হাজার ৩২২ জন ভোটারের মধ্যে ৪১ হাজার ৩০ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন তাদের।

এ পৌরসভায় ১৫টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে বিজয়ী হলেন-

১নং ওয়ার্ডে গোলাম মোস্তফা (পানির বোতল প্রতীক), ২নং ওয়ার্ডে মো. আল আমিন (পাঞ্জাবী প্রতীক), ৩নং ওয়ার্ডে সুমন বিন তাহের পাটওয়ারী (পাঞ্জাবী প্রতীক), ৪নং ওয়ার্ডে আবুল কালাম (পাঞ্জাবী প্রতীক), ৫নং ওয়ার্ডে উত্তম দত্ত (উটপাখী প্রতীক), ৬নং ওয়ার্ডে আবুল খায়ের স্বপন (ডালিম প্রতীক), ৭নং ওয়ার্ডে কামাল উদ্দিন খোকন (পানির বোতল প্রতীক)।

৮নং ওয়ার্ডে জাহিদুজ্জামান চৌধুরী রাসেল (উটপাখী প্রতীক), ৯নং ওয়ার্ডে মোহাম্মদ আলী (উটপাখী প্রতীক), ১০নং ওয়ার্ডে জসিম উদ্দিন (পাঞ্জাবী প্রতীক), ১১নং ওয়ার্ডে মাকছুদুর রহমান আলমগীর (উটপাখী প্রতীক), ১২নং ওয়ার্ডে রিয়াজ হোসেন রাজু (পাঞ্জাবী প্রতীক)।

১৩নং ওয়ার্ডে আহসানুল করিম শিপন (উটপাখী প্রতীক), ১৪নং ওয়ার্ডে জহিরুল ইসলাম (পানির বোতল প্রতীক)। ১৫নং ওয়ার্ডে মোহাম্মদ রাকিবুল হাসান ভূইয়া রাজিব (উটপাখী প্রতীক)।

সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১,২,৩ নং ওয়ার্ডে শাহিনা আক্তার ফেরদৌসী (চশমা প্রতীক), ৪, ৫, ৬নং ওয়ার্ডে তাছলীমা আক্তার (আনারস প্রতীক), ৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ডে বেগম লুলু (চশমা প্রতীক), ১০, ১১, ১২ নং ওয়ার্ডে নাহিদা আক্তার রিনা (চশমা প্রতীক), ১৩, ১৪, ১৫ নং ওয়ার্ডে রাহিমা বেগম (আনারস প্রতীক) নির্বাচিত হয়েছেন।

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জেলার রায়পুর ও রামগঞ্জের ২০টি ইউপিতে বিনা প্রতিদ্ব‌ন্ধিতায় ৩জনসহ নৌকা প্রতীকের ১৩ জন,বিদ্রোহী চেয়ারম্যান হলেন ৭ জন। এরা হলেন-

রামগঞ্জ উপজেলার কা নপুরে মো. নাছির খান (নৌকা প্রতীক), নোয়াগাঁও মো. সোহেল পাটোয়ারি (নৌকা প্রতীক), ভাদুরে মো. জাবেদ হোসেন (নৌকা প্রতীক), ইছাপুরে মো. আমির হোসেন খান (আনারস প্রতীকে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী) লামচরে ফয়েজুল্লাহ জিসান (মটর সাইকেল প্রতীক আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী)।

দরবেশপুরে মো. মিজানুর রহমান (নৌকা প্রতীক), করপাড়ায় জাহিদ মির্জা (ঘোড়া প্রতীকে বিদ্রোহী), চন্ডিপুরে মো. সামছুল ইসলাম সুমন (মোটর সাইকেল প্রতীকে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী), ভোলাকোট মো. দেলোয়ার হোসেন দিলু (চশমা প্রতীকে বিদ্রোহী), ভাটরায় শেখ সামছুল ইসলাম বুলবুল (আনারস প্রতীকে বিদ্রোহী) বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া রায়পুর উপজেলার ১০ টি ইউনিয়নে উত্তর চর আবাবিলে জাফর উল্যাহ দুলাল হাওলাদার (বিদ্রোহী), উত্তর চর বংশীতে মো.আবুল হো‌সেন (বিনা প্রতিদ্ব‌ন্ধিতায় নৌকা প্রতীক), চর মোহনায় মোহাম্মদ সফিক পাঠান (বিনা প্রতিদ্ব‌ন্দিতায় নৌকা প্রতীক), সোনাপুরে বিএম ইউসুফ জালাল কিসমত (নৌকা প্রতীক), চর পাতায় মো. সুলতান মামুন রশীদ( নৌকা প্রতীক)।

কে‌রোয়ায় শা‌হিনুর বেগম রেখা (নৌকা প্রতীক), বামনীতে তাফাজ্জল হো‌সেন(নৌকা প্রতীক),দ‌ক্ষিণ চরবংশীতে আবু জাফর মো. সা‌লেহ(নৌকা প্রতীক), দ‌ক্ষিণ চর আবা‌বিলে হাওলাদার নু‌রে আলম জিকু (নৌকা প্রতীক), রায়পুরে স‌ফিউল আজম (নৌকা প্রতীক) প্রতিদ্ব‌ন্ধিতায় নির্বা‌চিত হন।এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন।