করোনায় আজও ৩৯ জনের মৃত্যু

করোনায় আজও ৩৯ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৪:৩৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৩, ২০২০

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে রোববার থেকে সোমবার (১২ জুলাই) সকাল আটটা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুই হাজার ৩৯১ জনের মৃত্যু হলো।

এ ছাড়া দেশে নতুন করে আরো তিন হাজার ৯৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। প্রথম করোনা শনাক্তের ১২৮তম দিনে এসে দেশে মোট এক লাখ ৮৬ হাজার ৮৯৪ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন আরো চার হাজার ৭০৩ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ৯৮ হাজার ৩১৭ জন।

সোমবার (১৩ জুলাই) বেলা আড়াইটায় করোনাভাইরাস সম্পর্কিত সার্বিক পরিস্থিতি জানাতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনের আয়োজন করা হয়। সেখানে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৩৫৮টি, আগের নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৪২৩টি। এখন পর্যন্ত ৯ লাখ ৫২ হাজার ৯৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৯৯ জন।

২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ৯৫ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫২ দশমিক ৬১ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ২৮ শতাংশ।

নাসিমা সুলতানা জানান, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ৩০ জন পুরুষ এবং ৯ জন নারী। এখন পর্যন্ত মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে পুরুষ এক হাজার ৮৯০ জন এবং নারী ৫০১ জন।

২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৩ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজন এবং ০ থেকে ১০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।

মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৫ জন, ময়মনসিংহ একজন, রংপুর বিভাগে ২ জন, সিলেট বিভাগে ২ জন, খুলনা বিভাগে ৭ জন এবং বরিশাল বিভাগে ৩ জন রয়েছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৩৪ জন, বাসায় মৃত্যুবরণ করেছেন ৫ জন।

করোনাভাইরাস থেকে নিজেকে ও পরিবারের সদস্যদের সুরক্ষিত রাখতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি পালনের আহ্বান জানানো হয় বুলেটিনে।

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত যেকোনো তথ্যের জন্য একটি বিশেষ ওয়েবসাইট (www.corona.gov.bd) চালু রেখেছে সরকার।

দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর থেকে বেড়েই চলেছে মৃত্যু।

এদিকে করোনার পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করা ওয়ার্ল্ডো মিটার তথ্য অনুযায়ী, সোমবার বাংলাদেশ সময় বেলা ২টা পর্যন্ত বৈশ্বিক এ মহামারিতে সারা বিশ্বে ১ কোটি ৩০ লাখ ৪৯ হাজার ১০৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৭৫ লাখ ৯১ হাজার ৯১৩ জন সেরে উঠলেও প্রাণ গেছে ৫ লাখ ৭১ হাজার ৮০৭ জনের। বাকী ৪৮ লাখ ৮৫ হাজার ৩৮৬ জন মৃদু বা মারাত্মক উপসর্গ নিয়ে এই রোগের সঙ্গে লড়াই করে যাচ্ছেন।

করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যায় সবার ওপরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এ পর্যন্ত ৩৪ লাখ ১৩ হাজার ৯৯৫ জনের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত করেছে দেশটি। এ শনাক্তের জন্য তারা ৪ কোটি ২৪ লাখ ৬৯ হাজার টেস্ট করে। শনাক্তের দিক থেকে দ্বিতীয়তে আছে ব্রাজিল। দেশটির ১৮ লাখ ৬৬ হাজার ১৭৬ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। তিন নম্বরে রয়েছে ভারত যাদের শনাক্তের সংখ্যা ৮ লাখ ৭৯ হাজার ৪৮৭।

সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে যেসব দেশে: যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৮২ জন, ব্রাজিলে ৭২ হাজার ১৫১ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৪ হাজার ৮১৯ জন, মেক্সিকোয় ৩৫ হাজার ৬ জন, ইতালিতে ৩৪ হাজার ৯৫৪ জন, ফ্রান্সে ৩০ হাজার ৪ জন, স্পেনে ২৮ হাজার ৪০৩ জন, ভারতে ২৩ হাজার ১৯৪ জন, ইরানে ১২ হাজার ৮২৯ জন ও পেরুতে ১১ হাজার ৮৭০ জন।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ২১৩টিরও বেশি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।