কুমিল্লা ভিক্টোয়ান্সের নাটক!

প্রকাশিত: ৮:২৬ অপরাহ্ণ, মে ২৪, ২০২০

গ্লাডিয়েটর্সের অধিনায়ক মাশরাফি ঢাকা বিপিএলের প্রথম ২টি আসরে চ্যাম্পিয়ন। অথচ, তাকে নিয়েই কি না তৃতীয় সংস্করনে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স করেছে নাটক !

ফাইনালে অলক কাপালীকে একাদশে রাখা নিয়ে কোচ সালাউদ্দিনের সঙ্গে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের দ্বন্দ্বের কথা মিডিয়ায় প্রকাশ পেয়েছে অনেক আগেই।

কোচ সালাউদ্দিন ছিলেন না ট্রফি উদযাপনের সময় সেখানে, তার কারন হিসেবে ফ্রাঞ্চাইজির হস্তক্ষেপ উঠে এসেছে মিডিয়ায়। নিলামে আইকন ক্যাটাগরী থেকে মাশরাফিকে নেয়ার পর চ্যাম্পিয়ন অধিনায়ককে নিয়ে বিপিএলের তৃতীয় সংস্করনে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ফ্রাঞ্চাইজির  নাটক এতোদিন ছিল অপ্রকাশিত।

শনিবার রাতে তামিমের ফেসবুক লাইভ আড্ডায় যুক্ত হয়ে সেই ঘটনাটিই জানিয়েছেন কোচ সালাউদ্দিন। প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসের কাছে ৬ উইকেটে হেরে যাওয়ার পর চিটাগাং ভাইকিংসের বিপক্ষে পরের ম্যাচে  মাশরাফি নিজেই ঝুঁকি নিয়ে মিডল অর্ডারে ব্যাটিংয়ে নেমেছেন।

চিটাগাং ভাইকিংসের ১৭৬/৪ এর জবাবে স্কোরশিটে যখন ৫৪/৩, এর পর ৮২ বলে ১২৩ রানের টার্গেটের মুখে দাঁড়িয়ে ঝুঁকি নিয়ে ৫ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন মাশরাফি। ৩২ বলে ৪ চার,৩ ছক্কায় ৫৬ রানের ঝড়ো ম্যাচ উইনিং ইনিংস উপহার দিয়েছেন।

১৭৫.০০ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিংয়ে মারলন স্যামুয়েলসের সাথে ৪র্থ উইকেট জুটিতে অবিচ্ছিন্ন ১২৩ রানে দিয়েছেন নেতৃত্ব। হয়েছেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ মাশরাফি। সেই ম্যাচের গল্পটাই শুনিয়েছেন সালাউদ্দিন-অকশনের পর মাশরাফি খেলবে, কি খেলবে না, তা নিয়ে অনেক ড্রামা হয়েছে। দ

এটা ঠিক করতে এক মাস লেগে গেছে। প্রথম ম্যাচে বাজেভাবে হেরে যাই। তারপর রাতে আড্ডা দেই। আড্ডা দিতে দিতে ভোর ৫টা বেজে যায়। তখন মাশরাফি বলল, এই টিম নিয়ে কিছু হবে না। আমার টিম নামায়ে দেন। আমি ওকে তিন নম্বরে ( হবে ৫ নম্বরে) নামিয়ে দিলাম। মাশরাফি ম্যাচটা বের করে আনল।’

ফাইনালেও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ফ্রাঞ্চাইজির সঙ্গে তর্ক বাধিয়ে কোচ সালাউদ্দিন একাদশে রেখেছেন অলক কাপালীকে।  তার ম্যাচ উইনিং ২৮ বলে ৩৯ রানের ইনিংসে ট্রফি উৎসব করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

ভুলুয়া বাংলাদেশ/এএইচ