খুলে গেল পর্যটকদের জন্য দর্শনীয় আইফেল টাওয়ার

প্রকাশিত: ৩:১৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০২১

শুক্রবার (১৬ জুলাই) থেকে পর্যটকদের জন্য খুলে গেল ইউরোপের দর্শনীয় স্থাপনা আইফেল টাওয়ার। করোনার প্রকোপে নয় মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে খুলে দেওয়া হল এটি। ফরাসি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর আইফেল টাওয়ার কখনো এতদিন বন্ধ থাকেনি।

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের কেন্দ্রে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকা লোহার তৈরি আইফেল টাওয়ার সাধারণের জন্য খুলে দেওয়ায় শুক্রবার থেকে বিশ্বের অন্যতম এই পর্যটন আকর্ষণের এক হাজার ফুট উচ্চতায় (৩০০ মিটার) এর চূড়ায় যেতে পারবেন দর্শনার্থীরা।

তবে করোনা মহামারির প্রকোপের কারণে এর চূড়ায় উঠার সংখ্যা সীমাবদ্ধ করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষের ঘোষণা অনুযায়ী, দিনে আইফেলের চূড়ায় স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে অর্ধেক অর্থাৎ ১৩ হাজার মানুষ উঠতে পারবেন। শারীরিক দূরত্বসহ স্বাস্থ্যবিধি পালনে এই ব্যবস্থা।

এছাড়া আগামী বুধবার থেকে আইফেল টাওয়ারে গেলে দর্শনার্থীদেরকে টিকা নিয়েছেন সেই প্রমাণপত্র অথবা করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হওয়ার প্রমাণ দিতে হবে। ফ্রান্স সরকার সম্প্রতি যেসব নির্দেশনা জারি করেছে তার অংশ হিসেবেই এসবের প্রয়োজন পড়বে।

আইফেল টাওয়ার পরিচালনাকারী কোম্পানির প্রধান জ্যাঁ ফ্রান্সিস মার্টিনস ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘অবশ্যই এতে করে দর্শনার্থীদের জন্য আইফেল টাওয়ারের কার্য পরিচালনায় জটিলতার সৃষ্টি হবে। তবে এটা অবশ্য মানিয়ে নেওয়া সম্ভব।’

কর্তৃপক্ষের ধারণা, করোনায় অর্ধেক দর্শনার্থী হবে ফরাসি। বাইরের দেশের মধ্যে স্পেনের দর্শনার্থী হবে বেশি। ব্রিটিশ পর্যটকেরও তেমন দেখা না গেলেও মার্কিন পর্যটক ১৫ শতাংশ এবং অল্প কিছু সংখ্যক দর্শনার্থী এশিয়ার দেশগুলোর হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

১৮৮৯ সালের ৩১ মার্চ আইফেল টাওয়ার সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছিল। তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিঁয়েরে তিরার্দ ও টাওয়ার তৈরির কাজ করা ২০০ নির্মাণশ্রমিকের উপস্থিতিতে উদ্বোধন করা হয় প্রকৌশলবিদ্যার এই বিস্ময়। টাওয়ারটির নামকরণ করা হয় এটির রূপকার, প্রকৌশলী গুস্তাভ আইফেলের নামে।

 

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন।