নোয়াখালীতে পেট্রোল ঢেলে সৎ মা'কে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

নোয়াখালীতে পেট্রোল ঢেলে সৎ মা’কে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশিত: ২:১৪ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০

বুরহান উদ্দিন (নোয়াখালী প্রতিনিধি): নোয়াখালীর সদর উপজেলায় পারিবারিক কলহে বসতবাড়িতে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয়ার ঘটনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

এ ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ তিন জনকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পাঠানো হয়েছে। অপরদিকে, আহত আরও ২ জন নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

পুলিশ জানায়, সোমবার (১৯ অক্টোবর) সকালে সদর উপজেলার রামহরি ভালুক গ্রামে সৎ মায়ের বাড়িতে যান কামাল উদ্দিন। এ সময় সৎ মা আসমা বেগমের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। ঘটনার এক পর্যায়ে পেট্রোল ঢেলে ঘরে আগুন ধরিয়ে দেন কামাল।

এতে কামাল ও তার সৎ মা আসমা বেগম এবং ঘরে থাকা তিন প্রতিবেশী তারেক, সুমন ও মান্না দগ্ধ হন। পরে তাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে ৩ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে আনার পথে সৎ মা আসমা বেগম মারা যান।

সুধারাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) টমাস বড়ুয়া বলেছেন, রাম হরিতালুক গ্রামের ইসমাইল হোসেনের প্রথম স্ত্রীর মৃত্যুর পর আসমা বেগমকে তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেন। দ্বিতীয় স্ত্রীর সাথে ইসমাইলের প্রথম স্ত্রীর ছেলে মেয়েদের বনিবনা না হওয়ায় কিছুদিন আগে তারা বাড়ি ছেড়ে চলে যায়। সোমবার ইসমাইলের বড় ছেলে কামাল উদ্দিন ওই বাড়িতে গেলে সৎ মায়ের সাথে তার কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে ঘরের একটি কক্ষে পেট্রোল ঢেলে অগ্নিসংযোগ করেন কামাল। এ সময় কামালসহ কক্ষে থাকা তার সৎ মা ও প্রতিবেশিরা দগ্ধ হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে ২৫০ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য আসমা, কামাল ও তারেককে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়।

পরিদর্শক টমাস বড়ুয়া বলেন, এ ঘটনায় অগ্নিসংযোগকারী কামালের শ্যালককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

ভুলুয়াবিডি

নিউজটি শেয়ার করুন।