ফাইল: ছবি

নোয়াখালী কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

প্রকাশিত: ১:৪৪ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২০

নোয়াখালী সংবাদদাতা: নোয়াখালী জেলা কারাগারে এক কয়েদির মৃত্যু হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মো. আব্দুল গোফরান (৭০) নামের ওই কয়েদির মৃত্যু হয়।

তিনি জেলার সেনবাগ উপজেলার বালিয়াকান্দি গ্রামের মৃত জাফর আলীর ছেলে। নোয়াখালীর জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক মো. মনির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত ২ জুন জমি নিয়ে মারামারির এক মামলায় গ্রেপ্তারের পর কারাগারে ছিলেন আব্দুল গোফরান।

কারা তত্ত্বাবধায়ক মনির হোসেন জানান, আব্দুল গোফরান বুধবার বেলা ১১টায় কারাগারে হৃদরোগে আক্রান্ত হন। পর কারা কর্তৃপক্ষ তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে জরুরি বিভাগে নিয়ে যায়। চিকিৎসক তাকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের ১২ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করান।

সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে বেলা ১২টার দিকে কারা কর্তৃপক্ষ একটি অ্যাম্বুলেন্সযোগে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে সেখানেই তার চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে মৃত্যু হয়।

তিনি জানিয়েছেন, আব্দুল গোফরানের মৃত্যুর খবর তার পরিবারকে জানানো হয়েছে। তার লাশ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) সৈয়দ মহি উদ্দিন আবদুল আজিম বলেন, ‘বুধবার বেলা সোয়া ১১ টার দিকে কারাগার থেকে ওই ব্যক্তিকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।’

মৃত আব্দুল গোফরানের মেয়ে রানী বেগম জানান, নোয়াখালী জেল সুপার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ফোনে তার বাবার মৃত্যু সংবাদ দেন।

সেনবাগ থানার ওসি আব্দুল বাতেন মৃধা জানান, গত মে মাসের শেষের দিকে পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে গোফরান ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে প্রতিপক্ষের বাড়িতে গুলি ও হামলা চালান। ওই মামলায় গ্রেপ্তারের পর ২ জুন নোয়াখালী কারাগারে ছিলেন তিনি।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ