পরীমণিকে ফাঁসানো হয়েছে

প্রকাশিত: ৩:৪৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০২১

ঢাকা সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমণি। গত ৪ আগস্ট বনানীর নিজ বাসা থেকে আটক হন তিনি। বর্তমানে মাদক মামলায় কে ২ দিনের রিমান্ডে আছেন। পরীমণি ইস্যু নিয়ে ফেসবুকে বেশ সরব প্রখ্যাত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন তসলিমা নাসরিন। নিউজজি পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো- মিথ্যা মামলায় মেয়েটিকে ফাঁসানো হয়েছে উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, মেয়েটির বৃদ্ধ নানা এসেছেন আদালতে। অপারেশনের পর অসুস্থ শরীর নিয়ে এসেছেন।তাঁর সঙ্গে দেখাও করতে দেয়া হয়নি মেয়েটিকে। মেয়েটি দিন রাত কাঁদছে। মাদক, পর্ন ছবি সব বানানো। কার এত ক্ষোভ মেয়েটির ওপর?

মেয়েটিকে ধ্বংস না করে ছাড়বে না পণ করেছে! মেয়েটির মা মারা গেছে তার তিন বছর বয়সে। মা বাবা কেউই নেই তার। গ্রামের স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান শিক্ষক ছিলেন নানা, নীতিবান আদর্শবান নানার কাছে বড় হয়েছে মেয়েটি। এমন দয়ামায়া মেয়েটি দুঃস্থ শিল্পীদের জন্য প্রতিবছর দান করে।

এ দান করা নিয়েও কুৎসা, টাকা কোথায় পেল দান করার! সিনেমায় তো অনেকদিন,নিজের জন্য ফ্ল্যাটও কেনেনি এখনও তিনি। টাকা হাতে এলে বিলিয়ে দেয় গরীবদের। এ সরল সোজা শিশুর মতো হাসিখুশি মেয়েটি কষ্ট পাচ্ছে। একটি গাড়ি কিনেছে, তাতেও লোকেরা ক্ষুদ্ধ,টাকা কোথায় পেল গাড়ি কেনার! এই তো সেদিন পর্যন্ত মিডিয়া তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিল।

যেই না এক প্রভাবশালী ধনী শিল্পপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ করলো, অমনি মিডিয়া তাকে হেন অপবাদ নেই যে দিচ্ছে না। পুরো দেশের পুরুষতন্ত্র, পুঁজিতন্ত্র, ধর্মতন্ত্র, লিঙ্গতন্ত্র ক্ষেপে উঠেছে। মেয়েটিকে কেউ বাঁচতে দিতে চাইছে না। যদি আত্মহত্যা করে মেয়েটি! করতেই পারে। তখন নারীবিদ্বেষী এই কুৎসিত সমাজকে কি ভবিষ্যত ক্ষমা করবে?

 

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন।