ফকিরহাটে ২৪ ঘন্টার ব‍্যবধানে আবারও ধর্ষণ মামলা

ফকিরহাটে ২৪ ঘন্টার ব‍্যবধানে আবারও ধর্ষণ মামলা

প্রকাশিত: ৪:৫২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০

মো. সাগর মল্লিক (খুলনা ব্যুরো): বাগেরহাটের ফকিরহাটে এক গৃহবধূকে ধর্ষণ মামলার ২৪ ঘন্টা পার হতে না হতেই ফকিরহাট মডেল থানায় আরও একট ধর্ষণ মামলা দায়ের।

ফকিরহাটের ছোট বাহিরদিয়া এলাকার ১৪ বছর বয়সী এক কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। কিশোরীর দায়েরকৃত মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফকিরহাট থানা পুলিশ।

মামলার বিবরণী থেকে জানা যায়, অভিযুক্ত মো. মাছুম (৪০) দাদা পরিচয়ে কিশোরীর বাড়িতে প্রায়ই যাতায়াত করতো। যাতায়াতের সুবাদে ঠাট্টার ছলে কিশোরীকে বেশ কয়েকবার প্রেম ও বিয়ের প্রস্তাব দিতো সে। গত ১২ অক্টোবর মাছুম বিয়েসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ঢাকায় নিয়ে যায়।

মিরপুরে একটি ভাড়া বাড়িতে নিয়ে ৩ দিন ধরে একাধিক বার কিশোরীকে ধর্ষণ করে মাছুম। পরবর্তীতে কিশোরী বিয়ের কথা বললে মাছুম তাকে বিয়ে করতে পারবে না বলে ১৬ অক্টোবর সকালে বাগেরহাটের একটি বাসে তুলে দেয় এবং সে ঢাকায় থেকে যায়।

ওই দিন বেলা ৩ টায় কিশোরী ফকিরহাট উপজেলা মোড়ে পৌঁছালে ভ্যানচালক মকবুল (৪০) তাকে বাড়ি পৌছে দেয়ার কথা বলে কিশোরীকে তার ভ্যানে তোলে। কিন্তু তাকে বাড়ি না নিয়ে মকবুল সন্ধা ৭ টা পর্যন্ত এলাকার বিভিন্ন স্থানে ঘুরিয়ে ছোট বাহিরদিয়া এলাকার মোমেনা মেম্বারের বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি বাঁশবাগানে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

পরবর্তিতে ১৯ অক্টোবর রাতে কিশোরী বাদি হয়ে মোঃ মাছুম ও ভ্যানচালক মকবুলকে আসামী করে ফকিরহাট মডেল থানায় ৯ (১) ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন, সংশোধনী ২০০৩ এর ধারায় ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণের অপরাধে মামলা দায়ের করে, মামলা নং ১৫, ১৯-১০-২০২০।

জানা যায়, আসামী মোঃ মাছুম ছোট বাহিরদিয়া এলাকার বাবু খাঁ’র জামাই এবং ভ্যানচালক মকবুল বাবু খা’র ছেলে।
ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সাইদ মো. খায়রুল আনাম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মামলায় এখনও কোন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়নি। তাবে তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।