বাংলাদেশকে ২৫ কোটি ডলার বিশ্বব্যাংকের সহায়তা

প্রকাশিত: ১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ, জুন ২২, ২০২০

২৫ কোটি ডলার উন্নয়ন নীতি সহায়তা সেকেন্ড প্রোগ্রামেটিক জবস ডেভেলপমেন্ট পলিসি’ (ডিপিসি-২) পাওয়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ও বিশ্ব ব্যাংকের মধ্যে একটি ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। রোববার (২১ জুন) অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ (ইআরডি) ও বিশ্ব ব্যাংকের মধ্যে এ ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

রাজধানী ঢাকার শেরেবাংলা নগরে ইআরডি কার্যালয়ে বাংলাদেশের পক্ষে ইআরডি সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন এবং বিশ্ব ব্যাংকের ঢাকার আবাসিক প্রতিনিধি মিজ মার্সি টেমবন ঋণচুক্তিতে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে ঋণ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।  এসময় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সন্ধ্যায় অর্থ মন্ত্রণালয়ের তথ্য কর্মকর্তা গাজী তৌহিদুল ইসলামের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (আইডিএ) এর শর্তযুক্ত ঋণের আওতায় এই ঋণ পাঁচ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ৩০ বছরে পরিশোধ করতে হবে। সরকারের উদ্যোগ এবং প্রস্তাবিত সংস্কার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন‌্য বিশ্বব‌্যাংক ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরেরও ২৫ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দিয়েছিলো।

এরই ধারাবাহিকতায় ডিপিসি-২’র আওতায় ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে ২৫ কোটি ডলার বাজেট সহায়তা দিতে সম্মত হয়েছে। জবস ডেভেলপমেন্ট পলিসি ক্রেডিট এর আওতায় বিদ্যমান আইন-বিধি সংশোধন এবং হালনাগাদ করাসহ বিজনেস প্রসেস রিইঞ্জিনিয়ারিং করা হবে।

এর মাধ্যমে ডুইং বিজনেস ইনডেক্স এ বাংলাদেশে র‌্যাংকিং এর উন্নতি হবে ঘটবে এবং নতুন বিনিয়োগ আকর্ষণ সহজ হবে।  যার ফলে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করবে।

ডিপিসি-২ এর ২৫ কোটি ডলার আগামী অর্থবছরে ছাড়ের জন্য নির্ধারিত ছিলো। কিন্তু করোনা (কোভিড-১৯) এর পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধে বিশ্বব্যাংক চলতি অর্থবছরেই এ অর্থ ছাড় করতে সম্মত হয়েছে।

প্রাপ্ত বাজেট সহায়তার অর্থ জরুরি স্বাস্থ্য সেবা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজগুলো বাস্তবায়নে ব্যবহার করা হবে।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ