বেনাপোলে তরকারির দাম প্রশাসনের নজরদারির দাবি

বেনাপোলে তরকারির দাম প্রশাসনের নজরদারির দাবি

প্রকাশিত: ২:০৭ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০

এসএম স্বপন, যশোর প্রতিনিধি: বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণের পরিস্থিতিতে ও বৈরী আবহাওয়ায় বেনাপোল বাজারে কয়েকদিনের ব্যবধানে অস্বাভাবিকভাবে কাঁচা তরকারির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিগত কয়েকদিনের ব্যবধানে প্রতিটি সবজির দাম প্রায় ১০ থেকে ১৫ টাকা হারে বেড়ে গেছে। ফলে দিন দিন সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে যাচ্ছে তরকারির দাম। কারণ দিন আনা দিন খাওয়া মানুষগুলো পড়েছে বেশি বিপাকে। প্রায় না খেয়েই তাদের দিনযাপন করতে হচ্ছে।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২ টার সময় বেনাপোল বাজারে ঘুরে দেখা যায়, বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৬০-৬৫ টাকা, টমেটো ৮০-৮৫ টাকা, কাঁচা মরিচ ১৪০-১৫০ টাকা, উস্তে ৬০-৭০ টাকা, কলা ৫০-৫৫ টাকা, পেঁয়াজ ৬৫-৭০ টাকা, আলু ৩৫-৪০ টাকা, পেঁপে ২৫-৩০ টাকা, কচুর লতি ৩৫-৪০ টাকা, কচুর মুখি ৩৫-৪০ কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

এসময় বেনাপোল বাজারে বাজার করতে আসা আনিছুর নামে একজন দিনমজুর ক্রেতা বলেন, ‘আমরা ভাই গরিব মানুষ। দিনমজুর, কামলা খাটি খায়। দিনে যা জুটে তাই দিয়ে বাজার করি খায়। কিন্তু নিত্যপণ্যের দাম প্রতিদিন এমন হারে বাড়তে থাকলে আমাদের পরিবার নিয়ে না খেয়ে দিন কাটাতে হবে। প্রশাসন যদি এখনই ব্যবস্থা না নেয়, তাহলে আমাদের না খায়ি মরা লাগবি।’

বেনাপোল বাজারের তরকারি দোকানদার মিজান বলেন, খেতোওয়ালরা খেত থেকে সবজি এনে আড়তদারদের কাছে দেন। আমরা আড়তদারদের কাছ থেকে সেই তরকারি কিনে এনে খুচরা বাজারে বিক্রি করি। আর যেদিন যেমন দামে কিনে আনি, সেদিন তেমন দামে বিক্রি করি। এক্ষেত্রে আমাদের মত দোকানদারদের কাছ থেকে তরকারির দাম বৃদ্ধি পাওয়ার কোন সুযোগ নেই।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।