বেনাপোলে দন্ত চিকিৎসক তামান্না'র বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসা দেয়ার অভিযোগ

বেনাপোলে চিকিৎসক তামান্না’র বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসা দেয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত: ৮:৫০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০২০

যশোর অফিস: ভুল চিকিৎসা দিয়ে অভিভাবককে ৫০ হাজার টাকায় বিষয়টি নিস্পত্তি করার অভিযোগ উঠেছে দন্ত চিকিৎসক ডা. তামান্না শান্তা উর্মি’র নামে। এ ঘটনাটি ঘটেছে যশোর বেনাপোল বাজারের এসডি সুপার মার্কেটে তামান্না ডেন্টাল কেয়ার নামে একটি চিকিৎসা কেন্দ্রে।

ঘটনার শিকার বেনাপোল দিঘিরপাড় গ্রামের মনির হোসেন এর স্ত্রী ময়না খাতুন বলেন, তার ৪ বছরের ছেলে ইয়াসিন এর দাঁতে ব্যথা হলে ডাক্তার তামান্নার কাছে আমরা যাই। এরপর ডাক্তার আমার ছেলেকে কয়েকটি ঔষধের সাথে ৪০০ পাওয়ার এর ব্যথার ট্যাবলেট দেয়।

পরে ওই বড়ি খেয়ে আমার ছেলে পেটের ব্যথায় ছটফট করতে থাকে। রাতে ডাক্তারকে ফোন দিলে ডাক্তার উলটা পালটা আমাকে বুঝতে থাকে। আমি অভিযোগ থানায় দিব এ রকম বললে ডাক্তার তামান্না আমাকে অনুরোধ করতে থাকে থানায় যাবেন না।

এরপর কিছুক্ষণ পর ডা. তামান্নার পিতা পরিচয়ে একজন ফোন দিয়ে বলেন, এসব ঝামেলা করার প্রয়োজন নেই। ছেলের চিকিৎসা বাবদ ৫০ হাজার টাকা দিয়ে দিব। আমি এসব প্রস্তাব প্রত্যাখান করি। পরদিন সকালে আমার ছেলেকে যশোর নিয়ে ডাক্তার দেখিয়ে সুস্থ করি।

এ বিষয় ডাক্তার উর্মি বলেন, আমি তার দাঁতে অতিরিক্ত ব্যথার জন্য একটু পাওয়ারফুল ব্যথার ওষুধ দিয়েছিলাম। আর ওই ছেলের মা আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করার পরও তাকে বলেছি আপনি ছেলেকে নিয়ে আসেন যদি কোন সমস্যা হয় তবে আমি তা দেখে দিব।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।