ফাইল: ছবি

মিয়ানমারে খনি ধসে নিহত ৫০

প্রকাশিত: ৩:০৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২০

মায়ানমারের উত্তরাঞ্চলীয় কাচিন রাজ্যে জেড পাথরের খনিতে ভয়াবহ ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ৫০ জন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। দেশটির দমকল বিভাগ এবং তথ্য মন্ত্রণালয় এ কথা জানিয়েছে। খবর আনাদোলু এজেন্সি, রয়টার্স, বিবিসি।

দমকল বাহিনী জানিয়েছে, উত্তর মায়ানমারের কাচিন রাজ্যের পাকান্ত এলাকার খনিতে পাথর সংগ্রহ করেন শ্রমিকরা। এ সময় তুমুল বৃষ্টির জেরে ‘কাদার স্রোত’-এ চাপা পড়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

দমকল বিভাগকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত ৫০ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে যে, কাচিন রাজ্যের হাকান্ত এলাকার ওই খনি ধসে পড়ার ঘটনায় হয়তো আরও অনেকেই মাটি চাপা পড়েছেন। উদ্ধার কাজ চলমান রয়েছে। গত বছর এক খনিতে একটি দুর্ঘটনায় ১০০ জনের বেশি নিহত হয়েছিল।

মিয়ানমার বিশ্বের জেডের (পান্না) বৃহত্তম উৎস। কিন্তু এর খনিগুলোতে প্রায় দুর্ঘটনা ঘটছে। মিয়ানমারের জেড ব্যবসায় বছরে ৩০ বিলিয়ন ডলারের মতো আয় হয় বলে জানা গেছে। পাকান্ত হ’ল বিশ্বের বৃহত্তম জেড খনির সাইট। সাধারণত জেড হল একধরনের সবুজ পাথর, যা অলঙ্কারে ব্যবহৃত হয়। সেই অলঙ্কারের চাহিদাও বেশি।

উল্লেখ্য, জেড-সমৃদ্ধ পাক্তান এলাকার খনিগুলির অবকাঠামো অত্যন্ত নিম্নমানের বলে একাধিক সময়ে অভিযোগ উঠেছে। খনির মধ্যে প্রায়শই ধস-সহ অন্যান্য দুর্ঘটনার খবর মেলে। তাতে অনেকের মৃত্যুও হয়েছে। খনিগুলির আশপাশে যে গ্রামগুলি আছে, সেখানকার বাসিন্দারাও সারাক্ষণ আতঙ্কে কাটান – এই বুঝি ধস নামল।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ