রাজশাহীর পুঠিয়ায় ব্যবসায়ীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৬:১২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৮, ২০২০

মুক্তার হোসেন (রাজশাহী প্রতিনিধি): রাজশাহী পুঠিয়ায় সানি (২৬) নামের ভাংড়ী ব্যবসায়িকে নৃশংসভাবে জবাই করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে তার লাশ পাশের উপজেলার একটি কলা বাগানে ফেলে রাখা হয়েছে। খবর পেয়ে চারঘাট থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছেন।

নিহত সানি পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর-থান্দারপাড়া গ্রামের ভাংড়ী ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম ওরফে সমেজ আলীর ছেলে। শুক্রবার দিবাগত রাতে পনেরোমাইল বিহারীপাড়া গ্রামের বিলে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।

বানেশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান গাজি সুলতান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার (৭ আগষ্ট) দুপুরে খাওয়ার পর বাড়ি থেকে বের হয় সানি। এরপর থেকে মোবাইলে যোগাযোগ করেও আর কোনো সন্ধান পায়নি তার পরিবার।

শনিবার (৮ আগস্ট) সকালে পাশের বিহারীপাড়া বিলের দক্ষিনে চারঘাট উপজেলার একটি কলাবাগানে স্থানীয় লোকজন লাশ দেখতে পেয়ে তার বাড়িতে খবর দেন।

তিনি আরও বলেছেন, সানিকে আমাদের এলাকাতেই নির্মমভাবে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। এছাড়া তার লিঙ্গ কর্তনসহ হাত-পায়ে ধারালো অস্ত্রের মাধ্যমে জখম করা হয়েছে। তবে কি কারণে এই হত্যাকাণ্ড তা এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

নিহতের পিতা বলেছেন, সানি আমার একমাত্র ছেলে। সে আমার ভাংড়ীর দোকানে বেশীর ভাগ সময়ে ব্যবসায় সহযোগিতা করতো। আমার জানামতে তার এমন কোনো শত্রু ছিল না। কিন্তু কেনো তাকে এই নির্মমভাবে খুন হতে হলো?

আমি আইনের লোকদের কাছে মিনতি করছি আমার নিরাপরাধ ছেলের হত্যার রহস্য বের করে দোষীদের ফাঁসি দেয়ার জন্য। এলাকার লোকজনের মুখে শুনলাম গত বৃহস্পতিবার আমার ছেলের সাথে এলাকার কয়েক জনের তর্ক হয়েছিলো।

তবে পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম বলেন, নিহত ব্যক্তি আমাদের এলাকার হলেও ঘটনাস্থল পাশের উপজেলা। তাই বিষয়টি ওই থানা পুলিশ দেখভাল করবেন।

এ ব্যাপারে চারঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমিত কুমার কুন্ডু বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধারের জন্য ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সেখানে প্রাথমিক সুরতহাল শেষে লাশ ময়না তদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালে পাঠানো হবে। আর মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।