রায়পুরে এক বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত: ১১:০৭ অপরাহ্ণ, জুন ৩, ২০২০

রায়পুর সংবাদদাতা: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে নূর জাহান (৫৫) নামে এক বৃদ্ধা নারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। হাসপাতালে দুইদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ বুধবার (৩ জুন) সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান বৃদ্ধা।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ৭নং বামনী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড কাঞ্চনপুর গ্রামের মিয়াজান ডালী বাড়ীতে।

মামলার এজাহার ও নিহতের স্বজনরা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে নূর জাহান বেগমের সাথে একই বাড়ীর আবুল কালামের পুত্র এমরানদের সাথে বিরোধ চলে আসছিল।

গত ২৪ মে শিশু বাচ্ছাদের নিয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এমরান নূর জাহান বেগমের মেয়ে মায়াকে বেধড় পিটুনি দেয়। এ ঘটনায় মায়া স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে বিচার চাইতে গেলে সিএনজি চালক ইমরান আরো ক্ষিপ্ত হয়ে নূর জাহান বেগমের উপর হামলা চালায়।

এ সময় তাকে বাঁচানোর জন্য এগিয়ে আসলে এমরানের এলোপাথাড়ি রডের আঘাতে নিহতের মেয়ে মায়া (২২), পুনম (১৩), রাজু (২৮) গুরুত্বর জখম হয়। পরে তাদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে গুরুত্বর আহত অবস্থায় ৪ জনকে রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

অভিযোগ রয়েছে ৩ দিন রায়পুর সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাকালীন সালিশের নামে একই বাড়ির আনোয়ার ডালি ও সাবেক চেয়ারম্যান আনছার উল্লাহ আহতকে সোমবান হাসপাতালের সিট কেটে জোরপূর্বক বাড়ি নিয়ে আসেন। এতে নূর জাহানের শারীরিক অবস্থার বেশ অবনতি দেখা দেয়।

এরপর আজ বুধবার (৩ জুন) দুপুরে নূর জাহানের অবস্থার অবনতি হলে লক্ষ্মীপুর সদর সিটি হাসপাতালে তাকে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের স্বজনদের দাবি, নূর জাহান বেগমের মাথায়, পায়ে ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। জমির বিরোধের জেরে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

রায়পুর থানার ভাবপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তোতা মিয়া গণমাধ্যম কর্মীদের জারিয়েছেন, বৃদ্ধা মহিলা নূর জাহানকে পিটুনি দিয়ে হত্যার লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

ভুলুয়া বাংলাদেশ/এএইচ