রায়পুরে ইয়াবা ব্যবসার সম্পৃক্ততায় তিন পুলিশ প্রত্যাহার 

রায়পুরে তিন পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার 

প্রকাশিত: ১০:০১ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৫, ২০২১

রায়পুর সংবাদদাতা: লক্ষ্মীপুরের রায়পুর থানা পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মনিরুজ্জামান’সহ তিনজন পুলিশ সদস্যকে ইয়াবা ট্যাবলেট ব্যবসায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে প্রত্যাহার করা হয়েছে। থানা থেকে তাদেরকে জেলা পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) সন্ধ্যায় রায়পুর থানা পুলিশ এর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল জলিল এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যরা হলেন- রায়পুর থানার সহকারী উপপরিদর্শক(এএসআই)মনিরুজ্জামান, কনস্টেবল আতিক হোসেন’সহ  মোহাম্মদ মোখলেছ।

থানা সূত্রমতে, সম্প্রতি মরননেশা ইয়াবা ট্যাবলেট ব্যবসায় সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগ ওঠে রায়পুর থানার এএসআই মনিরুজ্জামান, কনস্টেবল আতিক হোসেন’সহ  মোহাম্মদ মোখলেছের বিরুদ্ধে।এ ঘটনায় ঊর্ধ্বতণ কর্তৃপক্ষ নির্দেশে বুধবার (২৪ মার্চ) তাদেরকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, কয়েকমাস ধরে পুলিশ কনস্টেবল আতিকসহ কয়েকজন ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত। তারা থানার সামনে সিএনজিচালিত অটোরিকশার লাইনম্যান শাকিল ও কয়েকজন সোর্সকে দিয়ে ইয়াবা সরবরাহ করে আসছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

ভিডিওতে শাকিল বলেছেন, পুলিশ কনস্টেবল আতিকের দেওয়া ইয়াবা সরবরাহ করতে গিয়ে তিনি ডিবির এসআই নুরুল ইসলামের হাতে ধরা পড়েছে। জামিনে বের হওয়ার পর আতিক তাকে ইয়াবা পাচারে করতে বাধ্য করেন।

 

এ বিষয়ে এএসআই মনিরুজ্জামান জানান, তিনি জেলা পুলিশ লাইন্সে রয়েছেন। কী কারণে তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে তা নিশ্চিতভাবে বলা হয়নি; আতিক-মোখলেছ মাদকের সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে তিনি শুনেছেন।

 

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।