রায়পুরে যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী’কে গাছে বেঁধে নির্যাতন, স্বামী গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৬:২১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০২০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: যৌতুকের দাবীতে লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুরে মধ্যযুগীয় কায়দায় স্ত্রী কাজল বেগম (৩৫)’কে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামী শরীফ হোসেনের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে রায়পুর উপজেলার সোনা মিয়া বেপারীতে এ ঘটনা ঘটে। যৌতুক ও নির্যাতনের ঘটনায় মঙ্গগলবার দুপুরে নির্যাতিত নারীর ভাই বোরহান উদ্দিন বাদী হয়ে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা করেন। মামলার পরে স্বামী শরীফ হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শরীফ রায়পুর উপজেলার সোনা মিয়া বেপারী বাড়ীর রফিক উল্যার ছেলে।

এদিকে গুরুতর আহত অবস্থায় রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন কাজল বেগম (৩৫)। কর্তব্যরত চিকিৎসক বলছেন, কাজলের চিকিৎসা চলছে সেরে উঠতে সময় লাগবে।

নির্যাতিতা নারী কাজল বেগম (৩৫) জানান, ফরিদগঞ্জ উপজেলার গজারিয়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের মেয়ে তিনি। প্রায় ১৮ বছর আগে তার সাথে রায়পুর উপজেলার সোনা মিয়া বেপারী বাড়ীর রফিক উল্যার ছেলে শরীফ হোসেনের সাথে ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তার স্বামী যৌতুকের জন্য প্রায়ই মারধর করত।

সম্প্রতি রায়পুর উপজেলার মধুপুর গ্রামে জমি কিনতে তিন লাখ টাকা পিতার বাড়ী থেকে এনে দিতে বাহানা ধরেছেন শরীফ। টাকা আনতে অপারগতা জানালে ঘরের দরজায় তালা মেরে শ্বশুর রফিক উল্যা, দেবর আরিফ, শ্বাশুড়ি মান সুরা বেগম ও ননদ শেফালী বেগম তাকে বেধর মারধর শুরু করে।

এক পর্যায়ে টেনে হেঁচড়ে ঘরের বাইরে এনে একটি গাছের সাথে বেধে বেধড়ক পিটাতে থাকে। অচেতন হয়ে পড়লে মরে গেছে ভেবে ছিটকে পরেন তারা। পরে জ্ঞান ফিলে এলে স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

প্রতিবেশী জুয়েল জানায়, এর আগেও একাধিকবার কাজল বেগমকে তালাক দেয়ার হুমকী দিয়ে শারিরীক নির্যাতন করা হয়। এনিয়ে একাধিক শালিস দরবার হয়েছে। রাত ৩টার দিকে ওই নারীকে উদ্ধার করে তার পিতার বাড়ীতে খবর দেয়া হয় এবং রাতেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার পর শরীফ হোসেনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করলেও শরীফের পিতা রফিক উল্যা, ছোট ভাই আরিফ, মা মান সুরা বেগম ও বোন শেফালী পলাতক রয়েছে।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল জানান, ফরিদগঞ্জ উপজেলার গজারিয়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের মেয়ে
কাজল বেগম (৩৫) যৌতুকের ঘটনায় মারধর শেষে নির্যাতনের ঘটনায় ওই নারীর ভাই বোরহান উদ্দিন বাদী হয়ে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা করেছেন। মামলার পর স্বামী শরীফ হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।