লক্ষ্মীপুরে এক জেলের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার!

লক্ষ্মীপুরে এক জেলের মৃতদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৫:৪৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২১

জেলে আব্দুল লতিফের মৃতদেহ


লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের সদর উপজেলার চররমনী মোহন এলাকার মেঘনা নদীর চরমেঘা গ্রাম থেকে জেলে আব্দুল লতিফ (২৫) এর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আব্দুল লতিফ সদর উপজেলার চররমনী মোহন এলাকার নাসির মিয়ার পুত্র ও জেলে।

আজ শুক্রবার (০২ জুলাই) দুপুরে পুলিশ চররমনী মোহন এলাকার চর মেঘনা নদীর চর মেঘা থেকে নিহত জেলের মৃতদেহ উদ্ধার করেন। আজ শুক্রবার ভোরবেলায় দুর্বৃত্তরা আব্দুল লতিফকে হত্যার পর নদীর পাসেই চর মেঘা গ্রামে গাছের সাথে ঝুলিয়ে রাখেন অভিযোগ নিহত স্বজনদের।

স্থানীয়রা জানান, পূর্ব শত্রুতার বিরোধ ধরে জেলে আব্দুল লতিফকে হত্যার পর মৃতদেহ গাছের সঙ্গে বেধে লাশ ফেলে রেখেছে সন্ত্রাসীরা। এদিকে নিহতের বড় ভাই আব্দুর রব জানান, তার ছোট ভাই আব্দুল লতিফ খুবই শান্ত প্রকৃতির লোক ছিলেন। কারও সাথে কখনও ঝগড়ায় জড়াতেন না।

তিনি আরও বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে তিনি আর ফেরত আসে নাই। পরের দিন শুক্রবার ভোরবেলায় আব্দুল লতিফকে দুর্বৃত্তরা হত্যার পর নদীর পাসেই চর মেঘা গ্রামে গাছের সাথে ঝুলিয়ে রাখে। পরে পুুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আব্দুল লতিফের মৃতদেহ নিয়ে আসেন। এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে তাদের গ্রেপ্তার ও বিচার দাবী করেন তিনি।

পুলিশ জানান, নিহতের স্বজনরা পুলিশকে অবহিত করে।পরে পুলিশ গিয়ে চররমনী মোহন এলাকার চর মেঘা গ্রাম থেকে গাছের সাথে ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেন। মৃতদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বলা যাবে এ বিষয়টি হত্যা না অন্যকিছু।

সদর থানার ওসি জসিম উদ্দিন জানান, শুক্রবার সকালে নিহতের স্বজনসহ স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সদর উপজেলা চররমনী মোহন এলাকার মেঘনা নদীর চর মেঘা গ্রামের গাছের সাথে বাধা ঝুলন্ত জেলে আব্দুল লতিফকে মৃতদেহ পরে রয়েছে। এ খবরে পুলিশ গিয়ে নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করেন। স্বজনদের থানায় অভিযোগ দেয়ার জন্য বলা হয়। এটি হত্যাকাণ্ড কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন।