লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূকে চোখ-মুখ বেঁধে নির্যাতন, হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত: ৩:৩৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১, ২০২১

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে এক গৃহবধূকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে পাশ্ববর্তী ধান ক্ষেতে নির্মমভাবে নির্যাতন (মারধর সহ হত্যার চেষ্টা) চালানোর অভিযোগ উঠেছে।আজ বুধবার (১ ডিসেম্বর) সকালে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই গৃহবধূকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে জেলার কমলনগর চরলরেন্স ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের একটি ধান ক্ষেতে নিয়ে এ নির্যাতন চালানো হয়। তবে গৃহবধূর জিহবা’সহ পুরো শরীর ক্ষত বিক্ষত থাকায় তার সুস্পষ্ট বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

গৃহবধূর স্বজন, পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে ভিকটিম গৃহবধুর স্বামী জসিম উদ্দিন (জেলে) মুঠোফোনে কল দিয়ে রাতে বাড়িতে আসবে বলে জানায়। রাতে একই নাম্বার থেকে কল দিয়ে দরজা খুলতে বলে।দরজা খোলার সাথে সাথে গৃহবধূর মুখ ও চোখ বেঁধে পাশ্ববর্তী ধানক্ষেতে নিয়ে যায় অজ্ঞাত ওই দূর্বৃত্তরা।

এসময় তাকে নির্মম নির্যাতন চালিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়।
পরে রক্তাক্ত অবস্থায় সকালে পাশের এক বাড়ীতে গিয়ে আশ্রয় নেন নির্যাতিতা গৃহবধূ। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে (মুখ মন্ডল, জিহবা, পায়ে) আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানায় প্রত্যক্ষদর্শীরা।

পরে ইউপি সদস্য আব্দুল খালেককে খবর দিলে পরিবার এর লোকজনসহ তাকে প্রথমে কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এমন খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে কমলনগর থানার ওসি মো. মোসলেহ উদ্দিন জানান, গৃহবধূ নির্যাতনের খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ প্রাপ্তি ও পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা চলমান রযেছে।

 

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন।