লক্ষ্মীপুরে বিদ্যুৎ সংযোগের নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়, যুবক আটক

লক্ষ্মীপুরে বিদ্যুৎ সংযোগের নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়, যুবক আটক

প্রকাশিত: ৭:২৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের কুশাখালীতে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ দেয়ার নামে গ্রাহকদের নিকট থেকে টাকা আদায়ের অভিযোগে মো.কামাল উদ্দিন (৩২) নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব।

রোববার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয়। এসময় আকটকৃত কামাল উদ্দিনের নিকট থেকে বেশ কিছু নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়। আটককৃত কামাল (৩২) জেলার সদর উপজেলার কুশাখালী ইউনিয়নের ঝাউডগী গ্রামের দুদু পাটওয়ারী বাড়ির খায়ের আহমেদের ছেলে।

বিদ্যুৎ প্রত্যাশী প্রতারিত গ্রাহকরা জানান, কয়েকদিন যাবত বিদ্যুৎ প্রত্যাশী গ্রাহকদের নিকট থেকে নতুন সংযোগ দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কামাল প্রায় ষাট লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। সংযোগ না পেয়ে ও প্রতারিত হয়ে ক্ষতিগ্রস্ততরা অভিযোগ করলে র‌্যাব ১১ একটি টিম অভিযান চালিয়ে তাকে আ্টক করেন।

লক্ষ্মীপুরের র‌্যাব-১১ জানায়, কুশাখালীর ঝাউডগী গ্রামসহ কয়েক গ্রামের ১৮’শ জন গ্রাহককে পল্লী বিদ্যুতের নতুন সংযোগ দিবে বলে ষাট লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে মো. কামাল উদ্দিন, সোহেল, আক্তার হোসেন, মো. মিলন ও মোস্তাফিজুর রহমানসহ একটি চক্র।

শুরুতেই বিদ্যুতের সংযোগ পেতে ওই সব গ্রাহকদের কাছে জনপ্রতি ৩ হাজার টাকা থেকে সাড়ে ৬ হাজার টাকা টাকা দাবি করে তারা। পরে কিছু গ্রাহক সময়মতো টাকা না দিতে পারলে তাদেরকে মারধরও করে বলে অভিযোগ উঠে। এমনকি খুঁটির জন্যও লাখ লাখ টাকা নিয়েছে এই চক্রটি।

পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি সূত্রমতে, গ্রাহক প্রতি মিটার সংযোগের জন্য নিরাপত্তা জমানত ৪শ’ এবং সদস্য ফ্রি ৫০ টাকাসহ মোট সাড়ে ৪শ’ টাকা লাগে। বিদ্যুৎ সংযোগের পাশাপাশি দুই পয়েন্টের ওয়্যারিং করে দেয়া হয়, যার সর্বোচ্চ ব্যয় দাঁড়ায় মজুরিসহ ১২-১৫ শ’ টাকা।

র‌্যাব-১১ এর লক্ষ্মীপুর ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আবু সালেহ জানান, আটককৃত যুবকের বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানায় চাঁদাবাজীর অপরাধে মামলা প্রক্রিয়াধীন। বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।