লক্ষ্মীপুরে ভাতিজার পিটুনিতে হাসপাতালে চাচা!

লক্ষ্মীপুরে ভাতিজার পিটুনিতে হাসপাতালে চাচা!

প্রকাশিত: ৫:২৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩০, ২০২০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ভাতিজার পিটুনিতে হাসপাতালে চাচা। গত শনিবার (২৯ আগস্ট) সন্ধ্যায় উপজেলা দিঘলী ইউনিয়ন খাগুড়িয়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

আহত আবুল কালাম সদর উপজেলার খাগুড়িয়া এলাকার মৃত মো. হাসান মিয়ার ছেলে। আবুল কালাম পেশায় একজন নির্মাণ শ্রমিক সর্দার।

চাচা আবুল কালামকে পিটিয়ে দাঁত ভেঙে দিয়েছেন তার ভাতিজা। শনিবার (২৯ আগস্ট) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার দিঘলী ইউনিয়নের খাগুড়িয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘ ১০ বছর ধরে ওয়ারিশি জমি বণ্টন নিয়ে আবুল কালাম ও তার বড় ভাই সোহরাওয়ার্দীর সঙ্গে বিরোধ ছিলো। এর জের ধরে সোহরাওয়ার্দীর ছেলে রনি বুধবার (২৬ আগস্ট) কালামের ছেলে নোমান আহমেদ অনিককে মারধর করেন। স্থানীয়ভাবে এ ঘটনার বিচার চাইলে কালামকে সোহরাওয়ার্দী মারধরের হুমকি দেন।

শনিবার সন্ধ্যায় রনি ও তার সহযোগীরা কালামের ওপর হামলা করে। একপর্যায়ে রনি লাঠি দিয়ে পিটিয়ে চাচা কালামের দাঁত ভেঙে দেন। এছাড়া কালামের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরে তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

রোববার (৩০ আগস্ট) দুপুরে সদর হাসপাতালে ভর্তিরত আহত আবুল কালাম জানান, তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বড় ভাই বি ত করার পাঁয়তারা করছে। এর জের ধরেই তার ছেলে রনি সহযোগীদের নিয়ে তাকে অন্যায়ভাবে মারধর করেছে।

তবে বিষয়টি মিথ্যা ও সাজানো বলে জানিয়েছেন, রনি ও তার বাবা সোহওয়ার্দী। মামলায় তাদের ফাঁসাতে আবুল কালাম ভর্তি হয়।

দাসেরহাট পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মফিজ উদ্দিন জানান, ঘটনাটি তিনি শুনেছেন। তবে কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।