ভারী বর্ষণেও গণটিকা নিতে মানুষের উপচে পড়া ভীড়

লক্ষ্মীপুরে ভারী বর্ষণেও গণটিকা গ্রহণে উৎসুক মানুষের উপচে পড়া ভীড়

প্রকাশিত: ১:৩৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৮, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক (লক্ষ্মীপুর): করোনার (কোভিড-১৯) গণটিকা ক্যাম্পইনে লক্ষ্মীপুর আদর্শ সামাদ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় টিকাদান কেন্দ্র’সহ বেশ কয়েকটি টিকাদান কেন্দ্রে ভারী বর্ষণেও মানুষের উপচে পড়া ভীড় দেখা গেছে।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে,জেলায় ৪টি পৌরসভা ও ৫৮টি ইউনিয়নে একযোগে সকাল ৯ টা থেকে শুরু হয়ে গণটিকা কার্যক্রম শেষ হয় বেলা ৩টায়। গণটিকা গ্রহনে প্রথম দিনে ভারী বর্ষণের মধ্যেও মানুষের উপস্থিতি আগ্রহ ছিল লক্ষ্যনীয়।

করোনা (কোভিড-১৯) টিকা কেন্দ্রে উপস্থিতি লোকজন জানান, টিকা গ্রহণ করতে এসে অনেককে মাস্ক ব্যবহার করেনি; এমন কি সামাজিক দূরত্ব মানতে দেখা যায়নি অনেককেই। তবে মুখে মাস্ক না থাকায় স্বাস্থ্যকর্মীরা মাস্ক পরার তাগিদ দেন।

লক্ষ্মীপুর আদর্শ সামাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় টিকাদান কেন্দ্রে টিকা নিয়ে ব্যবসায়ী মোরশেদ জানান, করোনায় সংক্রমণ যে হারে বাড়ছে, তাতে টিকার বিকল্প নেই। টিকা নিতে পেরে তিনি স্বস্তি পেয়েছেন বলে জানান তিনি।

তিনি আরও জানান, সকাল ৮ টা থেকে কয়েকজন নারী উপস্থিতি দেখা গেলেও বেশিরভাগ ছিলো পুরুষ। এছাড়া বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ টিকা কেন্দ্রে উপস্থিত হন। তিনি এ সময় উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিতির অধিকাংশই ছিলো পুরুষ।

ব্যবসায়ি রিয়াজ উদ্দিন (৫০) জানান, বৃৃষ্টির জন্য অনেক নারী কেন্দ্রে আসেন নাই। দুপুর আড়াই টার দিকে বৃষ্টি থামলে অনেক নারী টিকা কেন্দ্রে আসেন। তখন তারা সাড়ি সাড়ি দাড়িয়ে টিকা গ্রহণ করেন।

সিভিল সার্জন ডা: আব্দুল গফ্ফার জানান, জেলার ৪টি পৌরসভাসহ ৫৮টি ইউনিয়নে ওয়ার্ড পর্যায়ে একযোগে সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে গণটিকা কার্যক্রম শেষ হয় ৩টায়। এসময় ভারী বর্ষণের মধ্যেও টিকার জন্য হাজারো মানুষ বিপুল উৎসাহ নিয়ে কেন্দ্রে আসেন।

 

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন।