লক্ষ্মীপুরে মায়ের দু’হাত কেটে শিশু সন্তানকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

লক্ষ্মীপুরে মায়ের দু’হাত কেটে শিশু সন্তানকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত: ৯:০৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০২০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের বশিকপুরে ৪০ বছরের মা মরিয়ম বেগম এর দু’হাত কেটে সঙ্গে তার ৭ বছরের শিশু সন্তান রাজিয়া সুলতানাকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮ দিকে সদর উপজেলা বশিকপুর ইউনিয়নের বালাইশপুর দেওয়ান বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, এ ঘটনার রাতেই স্থানীয়রা মুমূর্ষু আবস্থায় আহত মা মরিয়ম বেগম ও তার মেয়ে রাজিয়াকে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করেন। মরিয়ম বেগম ওই এলাকার নবী উল্যাহ স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বসতঘরের দরজা ভেঙ্গে রাতেই দেওয়ান বাড়ীর মরিয়মের ঘরে হানা দিয়ে একদল দুর্বৃত্ত প্রবেশ করে। এ সময় তাদের বাধা দেয়া হলে সঙ্গে থাকা দা, ছেনী দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপ দেয়। ওই ঘরের গৃহিনীর দু’হাতে দুর্বৃত্তদের কোপ লাগে।

ওই সময় মায়ের রক্তাক্ত দেখে ৭ বছরের মেয়ে চিৎকার দিয়ে উঠলে তারা ওই শিশুটিকেও কুপিয়ে জখম করে।পরে তাদের চিৎকারে আশ-পাশের লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে গুরুত্বর আহত অবস্থায় মা ও মেয়েকে প্রথমে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে পরে ঢাকায় রেফার করে চিকিৎসক।

পুলিশ জানান, শনিবার রাতেই এ ঘটনার পর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান পুলিশ সুপার ড.কামরুজ্জামানসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা। ঘটনা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই এলাকা থেকে জাহেদ ও সোহেলসহ ২ জনকে থানায় আনা হয়েছে।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি জসিম উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন তিনি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জাহিদ তার প্রতিবেশি প্রবাসীর স্ত্রী-সন্তানকে কুপিয়ে জখম করেছে। পুলিশ তাকে আটক করতে অভিযান শুরু করেছে বলেও জানান তিনি।

অতিরিক্ত পুলিশ মোহাম্মদ মিমছানুর রহমান জানিয়েছে, হামলাকারীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রেখেছে। এ ঘটনায় থানায় এখনও মামলা হয়নি। ঘটনার পিছনে কি ছিলো তা এ মুহুর্তে আহতদের সাথে কথা বলতে না পারায় বিষয়টি পরিস্কার করতে পারছেন না তিনি। তবে দুর্বৃত্তায়নে মা-মেয়ে আহত হয়েছে বিষয়টি তিনিও নিশ্চিত করেছেন।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।