লক্ষ্মীপুরে স্ত্রী’কে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রকাশিত: ১০:৪৭ অপরাহ্ণ, মে ২৩, ২০২২

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে স্ত্রী’কে গলাটিপে হত্যার দায়ে স্বামী মোহাম্মদ রাশেদকে (২৬) যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার (২৩ মে) দুপুর সাড়ে ১২ টায় জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ রহিবুল ইসলাম এ রায় প্রদান করেন।

আসামী রাশেদ রায়পুর উপজেলার দক্ষিণ রায়পুর গ্রামের আতর উদ্দিন কাজী বাড়ির আলী হায়দারের ছেলে। নিহত ভিকটিম সীমা আক্তার সুমী (১৯) একই উপজেলার দক্ষিণ চর বংশী ইউনিয়নের চর বংশী গ্রামের খোকন ছৈয়ালের মেয়ে। বিয়ের ছয় মাসের মাথায় ২০২০ সালের ৩ মে রাতে স্বামী রাশেদ তাকে গলাটিপে হত্যা করে।

জেলা জজ আদালতের সরকারি কৌঁশুলী (পিপি) অ্যাড. জসিম উদ্দিন রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি জানান,৩০২ ধারায় হত্যার অভিযোগ প্রমানিত হওয়া আদালত আসামী রাশেদের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে আদেশ দিয়েছে আদালত।

তিনি আরও জানান, ২০২০ সালের ১৯ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রায়পুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইয়াছিন আরাফাত রাশেদকে অভিযুক্ত করে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। গ্রেফতারের পর থেকে আসামী রাশেদ কারাগারে বন্দি ছিলো। রায় প্রদানের সময় আদালতে উপস্থিত ছিলো সে।

মামলা ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ৩ মে গভীর রাতে রাশেদের সাথে তার স্ত্রী সীমা আক্তার সুমীর কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে সে তর স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যা করে অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে প্রচার করে।পরদিন পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে উল্লেখ করা হয়।

এরপরে একই বছরের ১৬ জুলাই নিহত সুমীর মা হাজেরা বেগম বাদি হয়ে জামাতা রাশেদকে আসামী করে রায়পুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। পরদিন পুলিশ আসামী রাশেদকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করলে সে ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন।