শিক্ষাখাতে নিয়োগে স্থবিরতা

শিক্ষাখাতে নিয়োগে স্থবিরতা

প্রকাশিত: ৬:৪০ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০২০

করোনা সংকটে গত মার্চ মাস থেকেই বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত রয়েছে। এর মধ্যে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে তাদের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিলেও কার্যক্রম স্থগিত রেখেছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার জন্য অপেক্ষায় রয়েছে অনেকে।

তবে দীর্ঘ অপেক্ষা শেষে ৩৮তম বিসিএস’র চূড়ান্ত ফলাফল দিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। নার্স, চিকিৎসক নিয়োগ থেকে শুরু করে বেশ কিছু কার্যক্রম হাতে নিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন। ইতোমধ্যে ৩৮তম বিসিএস নন ক্যাডার আবেদন শুরু হয়েছে গত মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) থেকে।

তবে এখনও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইউজিসির নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত রয়েছে। বছরের শুরুতে দেওয়া একাধিক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির কার্যক্রম স্থগিত রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। পাশাপাশি গত মার্চ মাসের শুরুতে দেওয়া বিজ্ঞপ্তি স্থগিত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। খুব শিগগিরই ইউজিসির নিয়োগ কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান বলেন, স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠান তাদের চাহিদার ভিত্তিতেই নিয়োগ দিয়ে থাকেন। প্রয়োজন ও গুরুত্ব অনুধাবন করে নিয়োগ কার্যক্রম শেষ করা হবে এবং তার আলোকেই আমাদের কার্যক্রম চলছে।

ইউজিসির সচিব ড. ফেরদৌস জামান বলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক না থাকায় শুরুতে নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। ইতোমধ্যে আমরা কথা বলেছি। চেয়ারম্যানের অনুমোদন পেলে শিগগিরই ফাইল ছাড়া হবে। আর আটকে রাখা হবে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক বলেন, নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সময়ক্ষেপণ না করতে আমরা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছি। করণা পরিস্থিতির মধ্যে নিয়োগ পরীক্ষার আয়োজন করা সম্ভব না হলেও আবেদন প্রক্রিয়া শেষ করতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, একটা নিয়োগ কার্যক্রম শেষ করতে অনেক সময় লেগে যায়, করণা পরিস্থিতির মধ্যে যদি নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয় সে ক্ষেত্রে আরও জটিলতা তৈরি হবে। তাই করোনা পরিস্থিতির মধ্যে কার্যক্রম স্থগিত না রেখে নিয়োগ প্রত্যাশীদের সুবিধার্থে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজন করা হবে বলেও জানান তিনি।

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

নিউজটি শেয়ার করুন।