স্বাস্থ্যের ৪ কর্মচারী বহিষ্কার

প্রকাশিত: ৫:৪১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০২১

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নথি গায়েব হওয়ার ঘটনায় স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের চার কর্মচারীকে চিহ্নিত করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়েছে। চিহ্নিত চার কর্মচারীকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।মঙ্গলবার স্বাস্থ্যশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. নুর আলী বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন,কমিটি রিপোর্ট জমা দিয়েছে এবং সে অনুযায়ী অ্যাকশন চলমান আছে। ফাইনালি যে জাজমেন্ট হবে, সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সাময়িক বরখাস্ত হওয়া চার কর্মচারী হলেন-

◑ ক্রয় ও সংগ্রহ-২ শাখার সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর আয়েশা সিদ্দিকা ও জোসেফ সরদার।

◑ প্রশাসন-২ শাখার (গ্রহণ ও বিতরণ ইউনিট) অফিস সহায়ক বাদল চন্দ্র গোস্বামী এবং

◑ প্রশাসন-৩ শাখার অফিস সহায়ক মিন্টু মিয়া।

উল্লেখ্য, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যশিক্ষা বিভাগের ১৭টি নথি গায়েবের ঘটনা ঘটে। ২৮শে অক্টোবর রাজধানীর শাহবাগ থানায় এ ঘটনায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হয়।

এরপর নথি গায়েবের ঘটনায় মন্ত্রণালয়টির অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন অনুবিভাগ) মো. শাহ্ আলমকে প্রধান করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। জিডির পর ঘটনার ছায়া তদন্ত শুরু করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

তদন্তের অংশ হিসেবে ৩১শে অক্টোবর সকালে সচিবালয়ে যায় সিআিইডির। তারা সচিবালয় তিন নম্বর ভবনের নিচতলার ২৪ নম্বর কক্ষে গিয়ে আলামত সংগ্রহ করেন।

 

 

ভুলুয়াবিডি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন।